logo

   

বিস্তারিত সংবাদ

News Photo রাজশাহীতে দুই দফা দাবিতে জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি প্রদান
রাজশাহী মহানগরীর দুটি স্থানে স্থায়ীভাবে একাধিক ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন এবং স্থায়ী পুলিশ বক্স স্থাপনের দাবিতে রাজশাহী জেলা প্রশাসককে ৩০৬ জন স্থানীয় জনগণের গণস্বাক্ষরিত স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। দুপুরে একজন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী এ স্মারকলিপি প্রদান করেন। এছাড়াও স্মারকলিপির অনুলিপি পুলিশ কমিশনার সহ ১২ জনকে পাঠানো হয়েছে।

রাজশাহী মহানগরীর ঘোষপাড়া মোড় ও ফায়ার সার্ভিসের মোড়ে সড়ক দূর্ঘটনা এবং এ অঞ্চলে অপরাধ মূলক কর্মকান্ড ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় ঘোষপাড়া ও ফায়ার সার্ভিসের মোড়ে স্থায়ীভাবে একাধিক ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন এবং অত্র অঞ্চলে একটি স্থায়ী পুলিশ বক্স স্থাপনের দাবিতে ৩০৬ জন স্থানীয় জনগণের গণস্বাক্ষর ও ৩ জন স্থানীয় জনপ্রতিনিধির সুপারিশ এবং আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন আসক ফাউন্ডেশন এর অনুরোধসহ একটি স্মারকলিপি রাজশাহী জেলা প্রশাসককে প্রদান করা হয়েছে। আজ (৬ মার্চ) দুপুর সারে ১২ টায় রাজশাহী কোর্ট মহাবিদ্যালয়ের (জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়) বাংলা বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী মোঃ শামীউল আলীম শাওন নিজে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে জেলা প্রশাসকের সাথে সাক্ষাত করে তার হাতে এ স্মারকলিপি তুলে দেন। তিনি এ স্মারকলিপির অনুলিপি রাজশাহী মহানগর পুলিশের কমিশনার, রাজশাহী মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভােগর ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (ডিসি), রাজশাহী মহানগর পুলিশের সহকারী পুলিশ কমিশনার (সদর), রাজশাহী মহানগর পুলিশের নগর বিশেষ শাখার সহকারী পুলিশ কমিশনার (সিটিএসবি), রাজশাহী মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক), রাজশাহী মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার (ডিবি), রাজশাহী মহানগর পুলিশের বোয়ালিয়া থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার (বোয়ালিয়া থানা), রাজশাহী মহানগর পুলিশের রাজপাড়া থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার (রাজপাড়া থানা) সহ মোট ১২ জনকে প্রেরণ করেছেন।

স্মারকলিপিেত বলা হয়েছে, রাজশাহী মহানগরীর মধ্যবর্তী স্থানে অবস্থিত ঘোষপাড়া মোড় একটি গুরুত্বপূর্ণ ও জনবহুল এলাকা। এই এলাকায় রাজশাহী জেলার একমাত্র বৃহৎ সরকারি চিকিৎসা সেবাদাতা কেন্দ্র রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল অবস্থিত। যেখানে প্রায় প্রতিনিয়ত হাজার হাজার রোগী চিকিৎসা সেবা নেওয়ার জন্য জেলা সহ বিভিন্নস্থানে থেকে আসেন। এর সাথেই রয়েছে রাজশাহীর একমাত্র সরকারি চিকিৎসা সেবা বিষয়ক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ও রাজশাহী নার্সিং কলেজ। যেখানে হাজার হাজার শিক্ষার্থী চিকিৎসা সেবা প্রদানের জ্ঞান অর্জন করে। এদিকে রয়েছে পরিবার পরিকল্পনা প্রশিক্ষণ ইন্সটিটিউট। এছাড়াও এই এলাকার আশেপাশে বাংলাদেশ পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট সহ বেশকিছু সরকারি বেসরকারি শিক্ষা ও বানিজ্যিক প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি ছোট বড় মেস রয়েছে। সম্প্রতি মেডিক্যাল কলেজের পূর্ব পাশে ফায়ার সার্ভিস মোড় - ঘোষপাড়া মোড় - কলাবাগান বাইপাস সড়ক নির্মিত হয়েছে। যাতে করে এই সড়কপথে প্রতিনিয়ত অসংখ্য যানবাহন ও পথচারী যাতায়াত করছে। যার ফলে এ অঞ্চলটি জনবহুল ও ব্যাস্ত নগরীতে পরিনত হয়েছে। জনসমাগম বৃদ্ধির সাথে সাথে এই অঞ্চলে সড়ক দুর্ঘটনা ও অপরাধমূলক কর্মকান্ডের ঘটনাও বৃদ্ধি পেয়েছে। যার ফলে সড়ক দুর্ঘটনা এড়াতে ও যানবাহন এবং পথচারীদের নিরবিঘ্নে চলাচল নিশ্চিত করতে বাইপাস সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে (ফায়ার সার্ভিস মোড়, ঘোষপাড়া মোড় উল্লেখযোগ্য) স্থায়ীভাবে ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন ও এ অঞ্চলের সার্বিক আইনশৃংক্ষলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও নিরাপত্তা করে রাখতে এলাকায় একটি স্থায়ীভাবে পুলিশ বক্স স্থাপন অনিবার্য হয়ে পরেছে।

স্মারকলিপিতে আরো উল্লেখ করা হয়েছে, বিগত ৬ বছর পূর্বে ২০১০ সালের জানুয়ারী মাসের ১৭ তারিখে ঘোষপাড়া মোড়ে স্থায়ী ভাবে ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েনের জন্য রাজশাহী মহানগর পুলিশের কমিশনার বরাবর আবেদন করা হয়েছিল। যার স্মারক নং-৪১১, তাং ১৭-০১-২০১০ইং। যা আলোর মুখ দেখেনি। এছাড়াও ২ মাস আগে গত ২০১৬ সালের জানুয়ারী মাসের ৫ তারিখে এ প্রসঙ্গে রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার কে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেছিলাম। যার স্মারক নং আর -১১, তাং ০৫-০১-২০১৬ইং। এরপর ঘোষপাড়া মোড়ে মাত্র ১জন ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন করা হয়। যা প্রায় মাত্র ৩ দিন মোতায়েন ছিল। এরপর আর কোন ট্রাফিক পুলিশ নজরে আসেনি।

জনসাধারণের নিরাপত্তার স্বার্থ বিবেচনা করে অবিলম্বে ফায়ার সার্ভিস মোড় ও ঘোষপাড়া মোড়ে স্থায়ীভাবে প্রয়োজন অনুযায়ী পর্যাপ্ত পরিমাণ ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন এবং এ অঞ্চলে একটি স্থায়ী পুলিশ বক্স স্থাপন করার জন্য স্মারকলিপিতে জেলা প্রশাসককে দাবি জানানো হয়েছে।

পাতাটি ৯৪৮ বার প্রদর্শিত হয়েছে।

সংগ্রহকারী:

 মন্তব্য করতে লগিন করুন